শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ল ৩০ মে পর্যন্ত

করোনাভাইরাসের কারণে আগামী ৩০ মে পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছুটি থাকবে।

গত মঙ্গলবার মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ মাহবুব হোসেন জানিয়েছেন, রোজা ও ঈদুল ফিতরের ছুটি শেষে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে।

সচিব বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে এক মাসের বেশি সময় দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অনির্ধারিত ভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে। বর্তমানে বার্ষিক শিক্ষাপঞ্জি হিসেবে রোজার ছুটি শুরু হয়েছে। এরপর ঈদুল ফিতরের ছুটি শুরু হবে। সব মিলে আগামী ৩০ মে’ পর সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে মঙ্গলবার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি জারি করতে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় সরকার সাধারণ ছুটি আরও ১১ দিন বাড়িয়ে আগামী ১৬ মে পর্যন্তু বর্ধিত করে। এ সময় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও বন্ধ থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী সম্প্রতি তার বক্তব্যে জানিয়েছেন, পরিস্থিতি খারাপ হলে আগামী সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকতে পারে।

এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ছুটি বাড়বে কি না তা পরে যাচাই করে দেখা হবে। প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য অনুযায়ী প্রয়োজন হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সোমবারের সরকারি ছুটির আদেশে বলা হয়, ৭ থেকে ১৪ মে পর্যন্ত সাধারণ ছুটি। সাধারণ ছুটির সঙ্গে ৬ মে’র বৌদ্ধ পূর্ণিমার ছুটি এবং ১৫ ও ১৬ মে’র সাপ্তাহিক ছুটিও যুক্ত হবে। এর আগে গত ২৩ এপ্রিল সাধারণ ছুটি ২৬ এপ্রিল থেকে ৫ মে পর্যন্ত বর্ধিত করে আদেশ জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। এরপর তা বাড়িয়ে ১৬ মে করা হলো।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সনক্তের পর প্রথম গত ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করে সরকার। পরে দফায় দফায় ছুটি বাড়ানো হয়।