সব শিক্ষা বোর্ড সীমিত আকারে খোলা হচ্ছে

 

দ্রোহ অনলাইন ডেস্ক

কিছুটা বিলম্বে হলেও এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশের তাগিদে সীমিত পরিষরে সব শিক্ষা বোর্ড খোলা হচ্ছে। স্থানীয় ডাক বিভাগের মাধ্যমে উত্তরপত্র বা ওএমআর শিট (অপটিক্যাল মার্ক রিডার) বোর্ডগুলোতে পাঠানোর জন্য পরীক্ষকদের জানানো হয়েছে।

করোনা মহামারীর কারণে টানা ৪১ দিন বন্ধ থাকার পর মে মাসের শেষের দিকে এ ফল প্রকাশের লক্ষ্য নিয়ে শিক্ষা বোর্ড কাজ শুরু করেতে যাচ্ছে।

শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানাগেছে, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের মধ্যে চলতি মে মাসের শেষের দিকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশের প্রস্তুতি নিচ্ছে শিক্ষা বোর্ডগুলো। এ লক্ষ্যে দেশের সব পরীক্ষকে ১০ মে’র মধ্যে স্থানীয় পোস্ট অফিসের মাধ্যমে বোর্ড অফিসে পরীক্ষার উত্তরপত্র পাঠাতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আর যাদের সুযোগ আছে তারা যেন সরাসরি বোর্ডে এসে উত্তরপত্র জমা দিয়ে যান। তবে শহরের বাইরে যারা আছেন কিংবা যাদের পোস্ট অফিসের সুযোগ নেই তাদের উপজেলা শিক্ষা অফিসের মাধ্যমে উত্তরপত্র জমা দিতে বলা হয়েছে।

ইতোমধ্যে শিক্ষা বোর্ডের তালিকায় থাকা প্রধান পরীক্ষকের মুঠোফোনে খুদে বার্তার মাধ্যমে এই তথ্য জানিয়ে দেয়া হয়েছে, যাতে তারা নিজ দায়িত্বে চলতি মাসের ১০ তারিখের মধ্যে পোস্ট অফিসে গিয়ে রেজিস্ট্রি ডাকের মাধ্যমে উত্তরপত্র নিজ নিজ শিক্ষা বোর্ডে পাঠিয়ে দেন। শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইটেও এ বিষয়ে নোটিশ দেয়া হয়েছে।

বিগত বছর গুলোর মতো এবারও স্ব স্ব শিক্ষা বোর্ডেও ওয়েবসাইটে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে। ঘরের বাইরে না গিয়ে কীভাবে সহজেই শিক্ষার্থীদের ফলাফল পৌঁছে দেয়া যায়, সে বিষয়টি নিয়েও শিক্ষা বোর্ডগুলো থেকে চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মুঃ জিয়াউল হক বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে গত ৪১ দিন ধরে শিক্ষা বোর্ডগুলো বন্ধ। এ কারণে এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের প্রস্তুতির ৩০ শতাংশ অসম্পন্ন রয়েছে। বর্তমানে পরিবহন বন্ধ থাকায় দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে পোস্ট অফিসের মাধ্যমে উত্তরপত্র সংগ্রহ করা হচ্ছে। আগামী ১০ মে’র মধ্যে সব উত্তরপত্র বোর্ডে জমা দিতে বলা হয়েছে। ফলাফল প্রকাশের প্রস্তুতির জন্য ৭ মে থেকে সব শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শাখাগুলো খোলা হবে। তিনি আশা করছেন, মে মাসের শেষের দিকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করতে পারবেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানায়, মে মাসের শেষভাগে বিশেষ করে ২০ থেকে ২৫ তারিখের মধ্যে টার্গেট করে শিক্ষা বোর্ডগুলোকে এএসসি ও সমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ মাহবুব হোসেন বলেন, করোনার কারণে ফল প্রকাশে কিছুটা দেরি হচ্ছে। তবে শিক্ষা বোর্ড চেয়ারম্যানদের সাথে সম্প্রতি বৈঠক হয়। তারা জানিয়েছেন, এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল তৈরির বেশির ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরবর্তী দুই সপ্তাহের মধ্যে এসএসসি ও সমমানের ফলাফল প্রকাশ করা সম্ভব হবে।