ভালুকায় কলেজ ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে নতুন বউয়ের সামনে থেকে ধর্ষক গ্রেফতার

তমাল কান্তি সরকার,ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
ময়মনসিংহের ভালুকায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ
করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার জামিরদিয়া হামিদের মোড় এলাকায়। এ ঘটনায় ২০জুলাই সোমবার সকালে ভালুকা মডেল থানায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। ধর্ষক আশরাফুল ইসলাম (২২) বিয়ে করে নতুন বৌ বাড়িতে নিয়ে আসার পর পুলিশ তাঁর নতুন বৌয়ের সামনে থেকে তাঁকে গ্রেফতার করে। মামলা সূত্রে জানা যায়, গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার মিজানুর রহমান খান মহিলা ডিগ্রি কলেজের ২য় বর্ষের ছাত্রী কলেজে যাওয়া আসার সময় উপজেলার
জামিরদিয়া গ্রামের আব্দুস ছামাদের ছেলে আশরাফুল ইসলাম প্রায় সময় প্রেম নিবেদন করে আসছিল। প্রেম নিবেদনের প্রেÿিতে প্রায় ২বছর পূর্বে তার সাথে ভিকটিমের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। প্রেমের সূত্র ধরে ভিকটিম আশরাফুলকে বিয়ের প্রস্ত্মাব দিয়ে আসছিল। ভিকটিম আশরাফুলকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে টালবাহানা শুরম্ন করেন।

গত ৬জুলাই রাতে ভিকটিম ঘরে বসে পড়ার সময় আশরাফুল ভিকটিমের ঘরে ঢুকে তাঁকে ধর্ষণ করে। এ সময় ভিকটিমের ডাক চিৎকার শুরম্ন করলে পাশের রম্নম থেকে তার বাবা-মা আসার পূর্বেই আশরাফুল দৌড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পর ১০জুলাই ভিকটিম বিয়ের দাবীতে ধর্ষকের বাড়িতে অবস্থান নেয় এর মাঝে গোপানে আশরাফুলের পরিবারের লোকজন
পার্শ্ববর্তী শ্রীপুর উপজেলার মুরগীরবাজার এলাকায় বিয়ের জন্য পাত্রী দেখেন। সামাজিক ভাবে বিচার না পেয়ে শেষ পর্যন্ত্ম ভিকটিম বাদী হয়ে রোববার (১৯জুলাই) সন্ধ্যায় ভালুকা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশ আশরাফুলকে নতুন বৌয়ের সামনে থেকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। ভিকটিম জানান, আমার একটাই দাবী যে আমার সব হরণ করেছেন আমি তাঁকে বিয়ে করবো। স্থানীয় মেম্বার খলিল আমার কাছ থেকে জোরপূর্বক স্ট্যাম্পে স্বাÿর নিয়েছে। শালিসানরা আশরাফুলের পরিবারের কাছ থেকে ২লাখ ৪০হাজার টাকা নিয়ে আমার ইজ্জত নিয়ে ছিনিমিনি খেলা শুরম্ন করেছে। খলিল মেম্বারের জন্য আশরাফুল আমাকে বিয়ে করে নাই।
মোবাইলে ইউপি সদস্য খলিলুর রহমান জানান, আমি জোরপূর্বক স্ট্যাম্পে
স্বাÿর নিই নি। আমার বিরম্নদ্দে সমস্ত্ম অভিযোগ মিথ্যা।

স্থানীয় চেয়ারম্যান তোফায়েল আহাম্মেদ বাচ্চু জানান, ছেলে-মেয়ের দীর্ঘ দিনের সম্পর্ক ছিল। ছেলে যখন বিয়ে করে ফেলেছে তখন মেয়ে তার বিরম্নদ্ধে মামলা করেছে। মেম্বার বিষয়টি আপোষ মিমাংসা করার চেষ্টা করতে পারে না ? টাকা পয়সা লেনদেনের কোনো ঘটনা নেই। ভালুকা মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ মাইন উদ্দিন জানান, কলেজ ছাত্রীকে প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ একটি মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় মুল আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।