স্বজনপোষণ বিতর্কে তাপসী পান্নুকে আক্রমণ করলেন, কঙ্গনা রানাউত।

স্বজনপোষণ বিতর্কে এ বার তাপসী পান্নুকে আক্রমণ করলেন কঙ্গনা রানাউত। ‘মুভি মাফিয়া’-দের নেকনজরে থাকতেই, পুরস্কার পেতেই নাকি তাঁদের খুশি করে চলেন ‘পিঙ্ক’ অভিনেত্রী, অভিযোগ কঙ্গনার টিমের।

স্বজনপোষণ নিয়ে অনেক বছর ধরেই সরব কঙ্গনা। প্রকাশ্যে কর্ণ জোহর থেকে আদিত্য চোপড়া, বলিউডের তামাম পরিচালক-প্রযোজককে স্বজনপোষণের ধ্বজাধারী বলে ঠুকেছেন তিনি। অন্য দিকে, সুশান্ত কাণ্ডের পর স্বজনপোষণ নিয়ে মুখ খুলেছেন তাপসী। বহিরাগত তিনিও। তাই স্টার কিডদের বাড়বাড়ন্তে তাঁরও যে বেশ কয়েকটি ছবি হাতছাড়া হয়েছে তা প্রকাশ্যেই বলেছেন তিনি। কিন্তু কোন ছবি, কোন স্টারকিড তা নিয়ে নীরব থেকেছেন তাপসী। আর এতেই চটেছেন কঙ্গনা এবং তাঁর টিম। বছর কয়েক আগে ‘নাম শাবানা’ছবি মুক্তির সময়ে কঙ্গনার উদ্দেশেতাপসী একবার বলেছিলেন, ‘‘কাজ না পেলে সব সময় স্বজনপোষণকে দায়ী করা ঠিক নয়।’’ সেই কথাই টেনে এনে কঙ্গনার বক্তব্য, তা হলে এখন সরব কেন তাপসী? তিনি লিখেছেন, ‘‘বহিরাগতদের যে আন্দোলন আমি শুরু করেছিলাম, অনেক বহিরাগতই তাতে বারেবারে বাধা দিয়েছে। আমাকে সরাসরি আক্রমণ করেছে। অপমান করেছে। ফলস্বরূপ তাদের ভাগ্যে জুটেছে ভাল ছবি, পুরস্কার। যে গাছ কঙ্গনা পুঁতেছিল তারই ফল খাচ্ছ তুমি, তাপসী, লজ্জা হওয়া দরকার।’’তাপসীর সঙ্গে কঙ্গনার সম্পর্ক যে বড় একটা মধুর নয়, এর প্রমাণ মিলেছে আগেও। কঙ্গনার কোঁকড়ানো চুল, তাপসীরও। তাঁদের মুখেরও বেশ মিল রয়েছে। তাপসী যখন ইণ্ডাস্ট্রিতে আসেন তখন তাঁর সঙ্গে কঙ্গনার চেহারার তুলনা করা হচ্ছিল খুব। জানতে পেরে কঙ্গনার দিদি রঙ্গোলী চান্ডেল তাপসীকে ‘কঙ্গনার সস্তা কপি’বলে কটূক্তি করেছিলেন। তাপসী যদিও চুপ করে ছিলেন। এ বারেও গোটা ঘটনায় তিনি নীরব।