বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউ রিকুইজিশন চেয়ে হাইকোর্টে রিট

করোনাভাইরাসজনিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তিদের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করতে দেশের বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউগুলো রাষ্ট্রীয়ভাবে রিকুইজিশন করতে উচ্চ আদালতে রিট করেছেন একজন চিকিৎসক। একইসঙ্গে আইসিইউর উপযুক্ত ব্যবহার ও দেশে সেন্ট্রাল বেড ব্যুরো বাস্তবায়নে এ রিট করা হয়েছে। এতে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, চট্টগ্রাম ও ঢাকার জেলা প্রশাসকসহ সাতজনকে বিবাদী করা হয়েছে।

আজ রোববার সকালে হাইকোটের ভার্চুয়াল আদালতে জনস্বার্থে রিট করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার শেখ আবদুল্লাহ আল মামুন।

মামলার আইনজীবী ঈয়াদিয়া জামান জানান, জনস্বার্থে করা রিটে সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশও করোনাভাইরাসের কারণে সংকটময় সময় পার করছে। এর মধ্যে স্বাস্থ্যখাতে জনগণের সুযোগ সুবিধা সংকুচিত হয়ে পড়েছে। সারা দেশে বেসরকারিভাবে তৈরি করা হাসপাতালগুলোর ৮৭ হাজার ৬১০টি বেডের বেশিরভাগই করোনা আক্রান্তদের জন্য সংকুচিত করে রেখেছে। ওই হাসপাতালগুলোর আইসিইউ সেবা না পেয়ে অনেক নাগরিক মারা যাচ্ছে।

আইনজীবী ঈয়াদিয়া জামান বলেন, ‘দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইনে ১২ সেকশন ২ (১১) ২৫ ও ২৬ ধারায় দুর্যোগকালীন যেকোনো বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিকের চিকিৎসাজনিত সুবিধাদি রাষ্ট্র গ্রহণ করতে পারে। চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের পরিচালনা করে জনগণকে সাংবিধানিকভাবে সেবাদান নিশ্চিত করার সুযোগ রয়েছে। এ ছাড়া জেলা প্রশাসক এ আইনের মাধ্যমে বেসরকারি হাসপাতাল হুকুম দখল করে সুবিধাদি পরিচালনা করার অধিকার রাখেন।’

এর আগে গত শুক্রবার চট্টগ্রামে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় আইসিইউসহ বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে রাষ্ট্রীয়ভাবে রিকুইজিশন করে জনগণের জন্য উন্মুক্ত করার দাবিতে নানা কর্মসূচি পালন করে অ্যাকশন অ্যাগেইনস্ট করোনা চট্টগ্রাম।

শুক্রবার সকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে সংগঠনটি কফিন মিছিল, মানববন্ধনসহ নানা কর্মসূচি পালন করে। ওই সময় সংগঠনের চট্টগ্রামের সমন্বয়ক ডা. সুশান্ত বড়ুয়া, তানভীর হোসেন, অ্যাডভোকেট আমীর আব্বাস, বীষুময় দেব বক্তব্য দেন।

বক্তারা বলেন, চট্টগ্রাম করোনার হটস্পট। দ্রুতগতিতে বাড়ছে করোনা রোগী। পোর্ট অব করোনাতে পরিণত হয়েছে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহরটি। সাড়ে তিন হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত। শতাধিক লোক ইতোমধ্যে মারা গেছে। বেসরকারি হাসপাতালগুলো স্বাস্থ্যসেবা দিচ্ছে না। প্রাইভেট প্র্যাকটিস বন্ধ দীর্ঘ দুই মাস ধরে। বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউগুলো অবিলম্বে রাষ্ট্রীয়ভাবে রিকুইজিশন করে জনগণের জন্য উন্মুক্ত করার দাবি জানান তাঁরা।

মানববন্ধন শেষে কফিন নিয়ে মিছিলটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।